Thikana News
১৫ জুন ২০২৪
  1. ই-পেপার
  2. চলতি সংখ্যা
  3. বিশেষ সংখ্যা
  4. প্রধান সংবাদ
  5. আমেরিকার অন্দরে
  6. বিশ্বচরাচর
আমেরিকা শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪

টেক্সাস সিনেটে এসবি ১১ বিল পাস অবৈধ অভিবাসন রাষ্ট্রীয় অপরাধ

টেক্সাস সিনেটে এসবি ১১ বিল পাস অবৈধ অভিবাসন রাষ্ট্রীয় অপরাধ
অবৈধ অভিবাসনকে রাষ্ট্রীয় অপরাধ হিসেবে আখ্যায়িত করার লক্ষ্যে টেক্সাসের সিনেটে এসবি ১১ নামে একটি বিল পাস হয়েছে। এ আইনের ফলে  টেক্সাস রাজ্য অভিবাসন আইন প্রয়োগ করার ক্ষমতা পেলো। বর্তমানে শুধুমাত্র ফেডারেল সরকার অভিবাসন আইন প্রয়োগ করার ক্ষমতা রাখে।
সীমান্ত বিল বা সিনেট বিল ১১ হিসেবে উল্লেখ করা এই আইনটি গত ১২ অক্টোবর বৃহস্পতিবার টেক্সাস সিনেটে পাস হয়েছে। এটি বাস্তবায়িত হলে অবৈধভাবে দেশে থাকার সন্দেহে অভিবাসীদের গ্রেপ্তারে স্থানীয় ও রাজ্য পুলিশের কর্তৃত্ব প্রসারিত হবে। 
এই আইনটির লক্ষ্য অনথিভুক্ত অভিবাসীদের আটক করার জন্য টেক্সাসের আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সক্ষমতা বৃদ্ধি করা। বিশেষ করে মেক্সিকো থেকে টেক্সাসে অবৈধ সীমান্ত ক্রসিং বেড়ে যাওয়ায় এই উদ্যোগ নেয়া হয়। 
বিলের সমর্থকরা যুক্তি দেন, অভিবাসন আইনের কঠোর প্রয়োগ টেক্সাসে অবৈধ সীমান্ত ক্রসিং প্রতিরোধ হিসেবে কাজ করবে।
তবে সমালোচকরা এ ব্যাপারে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। তাদের মতে, আইনটি অতিরিক্ত স্থানীয় কারাগারের দিকে নিয়ে যেতে পারে এবং সম্পত্তি ট্যাক্স বৃদ্ধির অর্থায়নে নতুন আটককেন্দ্র নির্মাণের প্রয়োজন হতে পারে।
যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধান অনুযায়ী অভিবাসন আইন প্রয়োগকারীরা ফেডারেল সরকারের এখতিয়ারের মধ্যে থাকায় আইন বিশেষজ্ঞরাও নতুন এ আইনের সাংবিধানিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। 
সুপ্রিম কোর্ট ২০১২ সালে একটি অনুরূপ অ্যারিজোনা আইন বাতিল করে দিয়েছে। আদালতের বর্তমান গঠন আগের চেয়ে আরও রক্ষণশীল। তাই আগের রায়গুলো পাল্টে দেয়ার সম্ভানা রয়েছে।
হাউসে যাওয়ার আগে বিলটির জন্য সিনেটে আরও একটি প্রো ফর্মা ভোট প্রয়োজন। চলতি বছরের নিয়মিত আইনসভা অধিবেশন চলাকালে একই ধরনের ব্যবস্থা হাউস পাস করতে ব্যর্থ হয়।
টেক্সাস ডিপার্টমেন্ট অফ পাবলিক সেফটির পূর্বাভাস অনুযায়ী, এ বছর প্রায় ১৫ লাখ অভিবাসী অবৈধভাবে টেক্সাসে প্রবেশ করতে পারে। ডিপিএস ডিরেক্টর স্টিভ ম্যাকক্রর মতে, আইনটি অনুমোদিত হলে রাজ্যের নিরাপত্তাকর্মীরা বার্ষিক ৭২ হাজার অনথিভুক্ত অভিবাসীকে গ্রেপ্তার করতে পারে। ডিপিএস অফিসাররা গত বছর ফৌজদারি অপরাধের জন্য ৩৫ হাজার ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছিল।
বিলের বিধান অনুযায়ী, অবৈধ প্রবেশের রাষ্ট্রীয় অপরাধের জন্য গ্রেপ্তারকৃতদের অবৈধ অভিবাসন মোকাবেলায় রাজ্যের বহু বিলিয়ন ডলারের উদ্যোগ ‘অপারেশন লোন স্টার’ পরিচালিত কেন্দ্রগুলোতে আটক রাখা হবে। প্রোগ্রামে অংশগ্রহণকারী কেন্দ্রগুলোর সর্বোচ্চ ধারণক্ষমতা ৩,০০০ ব্যক্তি।
গভর্নর গ্রেগ অ্যাবটের একটি ঘোষণার পরে বিলটি প্রস্তাব করা হয়। তিনি একটি বিশেষ আইনসভা অধিবেশন চলাকালে এই আইনটি তৈরি করার আহ্বান জানিয়েছিলেন। অ্যাবট সীমান্ত বাধা নির্মাণের জন্য বর্ধিত তহবিলও চেয়েছিলেন এবং হিউস্টন-এলাকা কমিউনিটির সাথে সম্পর্কিত সম্পত্তির মালিকানার সমস্যাগুলোকে মোকাবেলা করেছিলেন। এই সম্পত্তিকে রক্ষণশীল মিডিয়ায় বেআইনি অভিবাসীদের আশ্রয়স্থল হিসেবে চিত্রিত করা হয়।
উপরোক্ত বিলের পাশাপাশি সিনেট আরেকটি আইন অনুমোদন করেছে যা অভিবাসী চোরাচালান বা স্ট্যাশ হাউস পরিচালনার জন্য দোষী ব্যক্তিদের ফৌজদারি শাস্তি বাড়াবে।
হাউসে রিপাবলিকান প্রতিনিধি টম অলিভারসন বিলটি উত্থাপন করেন। এই বিলটি আইন প্রয়োগকারী কর্মকর্তাদের টেক্সাসের দক্ষিণ সীমান্ত দিয়ে অবৈধভাবে প্রবেশকারী অভিবাসীদের গ্রেপ্তার করতে এবং তাদের প্রবেশস্থলে নিয়ে যেতে ও মেক্সিকোতে প্রবেশের নির্দেশ দিতে সক্ষম করবে। নির্দেশনা মেনে চলতে ব্যর্থতার জন্য অপরাধমূলক অভিযোগে সম্ভাব্যভাবে ১০ বছর পর্যন্ত কারাবাস হতে পারে।
গ্রেটার হিউস্টন LULAC (ল্যাটিন আমেরিকান নাগরিকদের লীগ) এর সভাপতি ডক্টর সার্জিও লিরা এসবি ১১ পাস করার বিরোধিতা করে বলেন, এটি আমাদের দেশের জন্য উপকারী হবে না। এই আইনের লক্ষ্য টেক্সাসে অনথিভুক্ত অভিবাসনকে অপরাধী করা।

কমেন্ট বক্স